(মানব জীবনের ধারাবাহিকতা) এইচএসসি : জীববিজ্ঞান সৃজনশীল প্রশ্নোত্তর

মানব জীবনের ধারাবাহিকতা হচ্ছে একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির জীববিজ্ঞান ২য় পত্রের ৯ম অধ্যায়। মানব জীবনের ধারাবাহিকতা অধ্যায় থেকে সেরা বাছাইকৃত ৫টি সৃজনশীল প্রশ্ন এবং সে প্রশ্নগুলোর উত্তর সম্পর্কে আলোচনা করা হলো-

সৃজনশীল প্রশ্ন ১ : শিক্ষক শ্রেণিতে বললেন, আমরা আমাদের মায়ের গর্ভে। ভূণাবস্থা থেকে পরিস্ফুটনের মাধ্যমে অনেকদিন অবস্থানের পর পৃথিবীর আলো বাতাসের সংস্পর্শে এসেছি। তৃণাবস্থার পূর্বে বাবা-মার দেহে শুক্রাণু ও ডিম্বাণু উৎপন্ন হয় এবং নিষেকক্রিয়া শেষে মা গর্ভ ধারণ করেন।

ক. রজঃচক্র কী?
খ. পরিপাকে দাঁতের ভূমিকা লিখ।
গ. উদ্দীপকের শুক্রাণু উৎপাদন প্রক্রিয়াটি বর্ণনা করো।
ঘ. গর্ভবতী অবস্থায় মায়ের প্রতি আলাদা যত্ন নিতে হয় বিশ্লেষণ করো।

সমাধান : ক. বয়োঃপ্রাপ্ত নারীর সমগ্র যৌন জীবনে প্রায় নিয়মিত গড়ে ২৮ দিন পর পর জরায়ু থেকে রক্ত, মিউকাস, এণ্ডোমেট্রিয়ামের ভগ্নাংশ এবং
ধ্বংসপ্রাপ্ত অনিষিক্ত ডিম্বাণুর চক্রিয় নিষ্কাশনই হলো রজঃচক্র।

খ. পরিপাকের প্রথম ধাপটি মূলত দাঁতের মাধ্যমেই হয়ে থাকে। অধিকাংশ খাদ্য বৃহৎ অণু হিসেবে মুখবিবরে গৃহীত হয়। দাঁত তা কর্তন ও চর্বনের মাধ্যমে খাদ্যকে ভেঙ্গে সরল ও পরিপাকযোগ্য করে তোলে।

গ. উদ্দীপকে মানুষের শুক্রাণু সম্পর্কে বলা হয়েছে। শুক্রাণু উৎপন্ন প্রক্রিয়া বা স্পার্মাটোজেনেসিস একটি বিরামহীন চলমান প্রক্রিয়া। সমগ্র প্রক্রিয়াটি তিনটি ধাপে ভাগ করা যায়।
সংখ্যাবৃদ্ধি পর্যায়: শুক্রাশয়ের সেমিনিফেরাস নালিকার জার্মিনাল এপিথেলিয়ামের প্রিমর্ডিয়াল জননকোষ বা জনন মাতৃকোষ মাইটোসিস প্রক্রিয়ায় বার বার বিভাজিত হয়। সৃষ্ট কোষগুলোকে স্পার্মাটোগোনিয়া বলে। কোষগুলোতে ডিপ্লয়েড (2n) সংখ্যক ক্রোমোসোম থাকে।
বৃদ্ধি পর্যায়: শুক্রাশয়ের সারটলি কোষ থেকে প্রচুর পরিমাণ পুষ্টি গ্রহণনকরে স্পার্মাটোগোনিয়াম আয়তনে বৃদ্ধি প্রাপ্ত হয়, বৃদ্ধি প্রাপ্ত এ কোষগুলোকে প্রাইমারি স্পার্মাটোসাইট বলে।

পূর্ণতা পর্যায়: এ পর্যায়ে প্রাইমারি স্পার্মাটোসাইটগুলো (2n) মায়োসিস প্রক্রিয়ায় বিভাজিত হয়ে চারটি স্পার্মাটিভ (n) উৎপন্ন করে।
প্রথম মায়োটিক বিভাজনের মাধ্যমে দুটি সেকেন্ডারী স্পার্মাটিড উৎপন্ন হয়। পরবর্তীতে ২য় মায়োসিস বিভাজন প্রক্রিয়ায় চলাচলে অক্ষম গোলাকার চারটি অপরিণত শুক্রাণু বা স্পার্মাটিড উৎপন্ন করে।
পরবর্তীতে স্পার্মিওজেনেসিস প্রক্রিয়ায় জটিল পরিবর্তনের মাধ্যমে স্পার্মাটিডগুলো শুক্রাণুতে পরিণত হয়।

ঘ. গর্ভধারণের মাধ্যমে পরিবারে একজন নতুন সদস্য আসে। তাই গর্ভবতীর বিশেষ যত্ন নিতে হয়। গর্ভকালীন সময়ে মায়ের খাদ্যগ্রহণ ও শারীরিক পরিচর্যার দিকে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে। গর্ভাবস্থায় মায়ের স্বাস্থ্য ও অনাগত সন্তানের সুস্থতা ঠিক রাখতে তাকে পুষ্টিকর খাবার বেশি বেশি খেতে হবে। এসময় বেশি পরিমাণ প্রোটিন, সঠিক পরিমাণ শর্করা ও কম পরিমাণ চর্বি জাতীয় খাদ্যের সাথে লৌহ, ক্যালসিয়াম, জিঙ্ক, ফলিক এসিড, পটাসিয়াম ইত্যাদি গ্রহণ করছে কিনা সেদিকে বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে।

গর্ভাবস্থায় মা ও শিশু দুজনের চাহিদার কথা বিবেচনা করে খাদ্য তালিকা ঠিক করতে হবে এবং এসময় সকলে মা’কে বাড়তি খাবার গ্রহণ করতে উৎসাহিত করবেন। অন্যদিকে কোনো রোগ জীবাণুর সংক্রমণ যাতে না ঘটে সেদিকেও দৃষ্টি রাখবেন। গর্ভাবস্থায় মা’কে রোজ গোসল করিয়ে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। দাঁতের মাড়ি থেকে রক্তক্ষরণ হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

এসময় আঁট-সার্ট পোশাক ও উঁচু হিলের জুতা পরা যাবে না। পরিষ্কার সুতি ঢিলেঢালা ও আরামদায়ক কাপড় পরতে হবে। গর্ভাবস্থায় প্রথম তিন মাস ও শেষ দুমাস ক্লান্তিকর এবং ঝাঁকুনিযুক্ত ভ্রমণ না করাই ভালো। গর্ভবতী মাকে ধুমপান ও মদ্যপান থেকে সম্পূর্ণ বিরত থাকতে হবে। ডাক্তারের পরামর্শ ব্যতিত কোনো ওষুধ গ্রহণ করা যাবে না। এছাড়াও গর্ভাবস্থায় মায়ের মানসিক প্রশান্তি যাতে বজায় থাকে সে চেষ্টা করতে হবে।
এভাবেই, অনাগত সন্তানের নিরাপদ ভূমিষ্ঠ হওয়ার জন্য মায়ের যত্ন নেয়ার বিষয়গুলো বিশেষভাবে খেয়াল রাখতে হবে।

সৃজনশীল প্রশ্ন ২ : দুটি হ্যাপ্লয়েড কোষ মিলিত হয়ে একটি কোষে পরিণত হয়ে জীবনের সূত্রপাত ঘটায়। ডিপ্লয়েড কোষটি পুনঃপুন বিভাজিত হয়ে তিনটি স্তর বিশিষ্ট দশায় পরিণত হয় যা হতে বিভিন্ন অঙ্গের সূত্রপাত ঘটে

ক. রিফ্লেক্স কী?
খ. FSH, LH ব্লাস্টোসিস্টের সংস্থাপনে কী ভূমিকা পান করে?
গ. উদ্দীপকের ডিপ্লয়েড কোষটির তিনটি স্তরবিশিষ্ট দশায় পরিণত হওয়ার বিভিন্ন ধাপের চিহ্নিত করো।
ঘ. উদ্দীপকের ডিপ্লয়েড কোষটির তিনটি স্তরবিশিষ্ট দশার পরিণতি মূল্যায়ন করো।

সমাধান : ক. রিফ্লেক্স হচ্ছে উদ্দীপনার প্রতি সাড়া দেওয়ার সরলতম ধরণ।

খ. FSH থেকে বৃদ্ধি পর্যায়ে প্রচুর পরিমাণ ইস্ট্রোজেন হরমোন ক্ষরিত হয় যার অন্য দিকে LH সাময়িকভাবে এন্ডোক্রাইন গ্রন্থি হিসেবে কাজ
করে এবং প্রোজোস্টেরন হরমোন ক্ষরণ করে। এই উভয় হরমোনের প্রভাবে এন্ডোমেট্রিয়ামের বৃদ্ধি ত্বরান্বিত হয় যা প্রত্যক্ষভাবে ব্লাস্টোসিস্টের জরায়ুর এন্ডোমেট্রিয়ামে সংস্থাপনে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

গ. উদ্দীপকের ডিপ্লয়েড কৌষটির তিনটি স্তর বিশিষ্ট দশার পরিণত হওয়ার বিভিন্ন ধাপের চিহ্নিত চিত্র মানব জীবনের ধারাবাহিকতা অধ্যায়ে আলোচনা করা আছে।

ঘ. উদ্দীপকের ডিপ্লয়েড কোষটির তিনটি স্তর বিশিষ্ট দশার পরিণতি মানব জীবনের ধারাবাহিকতা অধ্যায়ে মূল্যায়ন করা আছে।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৩ : মাদকে আসক্ত নাভা বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে বেশি আলোচিত একটি ব্যধিতে আক্রান্ত। একটি ভাইরাসের মাধ্যমে এ রোগ হয়। জীবাণুটি দ্বারা মানুষ বিভিন্নভাবে আক্রান্ত হতে পারে। এ রোগের কোন প্রতিষেধক নেই। তাই মৃত্যু অবধারিত। জীবাণুটি মূলত রক্তের শ্বেত কণিকাকে আক্রমণ করে নষ্ট করে দেয়। ফলে আক্রান্ত ব্যক্তি অতি সহজেই নানাবিধ রোগে ভোগে।

ক. প্ৰজনন কী?
খ. বাংলাদেশে আই ভি এফ পদ্ধতিতে সর্বপ্রথম জন্ম গ্রহণকারী তিনটি শিশুর নাম কী?
গ. জীবাণুটি দ্বারা আক্রান্ত রোগের লক্ষণগুলো কী কী? বর্ণনা করো।
ঘ. মৃত্যুই মাদকে আসক্ত নাভার চরম পরিণতি। তোমার উত্তরের স্বপক্ষে যুক্তি দাও।

সমাধান : ক. যে পদ্ধতিতে জীব নিজের সত্ত্বা ও আকৃতি বিশিষ্ট অপত্য জীব সৃষ্টি করে প্রজাতির অস্তিত্ব রক্ষা করে তাই প্রজনন।

খ. বাংলাদেশে আইভি এফ পদ্ধতিতে সর্বপ্রথম জন্মগ্রহণকারী তিনজন শিশুর নাম হিরা, মণি, মুক্তা।

গ. জীবাণুটি দ্ধারা আক্রান্ত রোগ হলো AIDS. এ সম্পর্কে মানব জীবনের ধারাবাহিকতা অধ্যায়ে বর্ণনা করা আছে।

ঘ. নাভা মাদকে আসক্ত। মাদকে আসক্ত ব্যক্তি বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হতে পারে। এ সম্পর্কে মানব জীবনের ধারাবাহিকতা অধ্যায়ে আলোচনা করা আছে।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৪ : নিঃসন্তান দম্পতি আসিফ-মীনা। ডাক্তারি পরীক্ষার মাধ্যমে মীনার কিছু শারীরিক সমস্যার কথা জানতে পেরে তারা তাদের এক
ডাক্তার বন্ধুর কাছে গেলেন। বন্ধুটি তাদের সন্তান ধারণের জন্য আধুনিক এক বিশেষ পদ্ধতির কথা বলেন।

ক. স্বাভাবিক গর্ভধারণ কী?
খ. বয়ঃসন্ধিকাল বলতে কী বোঝায়?
গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত মীনা কী ধরনের শারীরিক সমস্যায় ভুগছেন?
ঘ. উদ্দীপকে উল্লিখিত ডাক্তার বন্ধুর পরামর্শই তাদের দীর্ঘদিনের আশা পূরণ করবে। বিশ্লেষণ করো।

সমাধান : ক. নারীদেহের অভ্যন্তরে শুক্রাণু ও ডিম্বাণু নিউক্লিয়াসের একীভবনের মধ্য দিয়ে নিষেক সম্পন্ন হয়ে পরিস্ফুটন শেষে একটি শিশু সন্তান ভূমিষ্ট হওয়ায় প্রক্রিয়াই হলো স্বাভাবিক গর্ভধারণ।

খ. সেকেণ্ডারি যৌন বৈশিষ্ট্যের উদ্ভবসহ জননাঙ্গের সক্রিয় পরিস্ফুটনকালকে বয়ঃসন্ধিকাল বলে। এ সময়টি কৈশোর অতিক্রম করে যৌবনে পদার্পণের মুহূর্ত। পুরুষের ১৩-১৫ বছর বয়সে এবং নারীর
১২-১৫ বছর বয়সের মধ্যে বয়ঃসন্ধিকাল শুরু হয়। এ সময় বিভিন্ন হ্রমোনের প্রভাবে দৈহিক ও মানসিক নানা পরিবর্তন সূচিত হয়।

গ. উদ্দীপকে উল্লেখিত মীনা প্রজননে অক্ষম বলে ধরে নেওয়া যায়। এ সম্পর্কে মানব জীবনের ধারাবাহিকতা অধ্যায়ে আলোচনা করা আছে।

ঘ. টেস্টটিউব বেবি প্রযুক্তি বা IVF পদ্ধতি সন্তান ধারণে অক্ষম দম্পতির জন্য আশীর্বাদ স্বরূপ কাজ করে। এ সম্পর্কে মানব জীবনের ধারাবাহিকতা অধ্যায়ে বিশ্লেষণ করা আছে।

— ৭ম অধ্যায় : মানব শারীরতত্ত্ব: চলন ও অঙ্গচালনা
— ৮ম অধ্যায় : মানব শারীরতত্ত্ব: সমন্বয় ও নিয়ন্ত্রণ

সৃজনশীল প্রশ্ন ৫ : এগারো বছরের সামিনা আজই বুঝতে পারল তার দেহে একটি বিশেষ পরিবর্তন দেখা দিয়েছে। তাই সে অনেকটা ভয় পেয়ে মায়ের কাছে বিষয়টি উপস্থাপন করল। মা তাকে অভয় দিয়ে বললেন- এই বয়সে মেয়েদের অনেক দৈহিক পরিবর্তনের সাথে এ ধরনের সমস্যা শুরু হয় যা ২ প্রত্যেক মাসে চক্রাকারে চলতে থাকে। পরে মা তাকে এ অবস্থায় করণীয় যথাযথ ব্যবস্থা শিখিয়ে দিলেন।

ক. ইমপ্লান্টেশন কী?
খ. ভ্ৰূণীয় মেসোডার্মের পরিণতি তুলে ধরো।
গ. উদ্দীপকে সামিনার দেহে এই বিশেষ পরিবর্তনের কারণ ব্যাখ্যা করো।
ঘ. উদ্দীপকে মা কর্তৃক সামিনাকে যথাযথ ব্যবস্থা শিখিয়ে দেয়ার বিষয়টি আমাদের সমাজের প্রেক্ষাপটে কতটুকু জরুরী বলে তুমি মনে করো?

সমাধান : ক. নিষেকের পর জাইগোট যে প্রক্রিয়ায় ব্লাস্টোসিস্ট অবস্থায় জরায়ুর এন্ডোমেট্রিয়ামে সংস্থাপিত হয় সেই প্রক্রিয়াই হলো ইমপ্ল্যান্টেশন।

খ. ভ্রূণীয় মেসোডার্মের পরিণতি: এপিমিয়ার থেকে ত্বকের ডার্মিস, নটোকর্ড, অধিকাংশ পেশি, মেসোমিয়ার থেকে রেচন, জননাঙ্গ এবং এদের নালিকাসমূহ; হাইপোমিয়ার থেকে ঐচ্ছিক পেশি, হৃৎপিণ্ড, দেহগহ্বরের আন্তঃআবরণী, পেরিকার্ডিয়াম, উপাঙ্গিক কঙ্কাল, যোজক
টিস্যু, রক্তকণিকা, রক্তনালি, লসিকা নালি, লাসিকাগ্রন্থি, চোখের বিভিন্ন অংশ দাঁতের ডেন্টিন, বৃক্কের কর্টেক্স।

গ. উদ্দীপকে সামিনার দেহের এই বিশেষ পরিবর্তন সম্পর্কে মানব জীবনের ধারাবাহিকতা অধ্যায়ে ব্যাখ্যা করা আছে।

ঘ. উদ্দীপকে মা কর্তৃক সামিনাকে যথাযথ ব্যবস্থা শিখিয়ে দেওয়ার বিষয়টি আমাদের সমাজের প্রেক্ষাপটে অত্যন্ত জরুরি। এ সম্পর্কে মানব জীবনের ধারাবাহিকতা অধ্যায়ে আলোচনা করা আছে।

Leave a comment

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More